ঢাকা ভোর ৫:২০, বৃহস্পতিবার, ১৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

অবৈধ গ্যাসলাইন বিস্ফোরনে দ্বগ্ধ যুবক হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে!

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে অবৈধ গ্যাস লাইন বিস্ফোরনের ঘটনায় দ্বগ্ধ যুবক হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। এদিকে বাড়ীর মালিকের ভয়ে দিশেহারা হয়ে ঘটনার ১২দিন পর গতকাল বৃহস্পতিবার (১২ই-মে) বিকেলে রূপগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন দ্বগ্ধ রবি মিয়ার স্ত্রী মুক্তা।
এদিকে গত শনিবার (৩০শে-এপ্রিল) বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে রূপগঞ্জ উপজেলার গোলাকান্দাইাল ইউনিয়নের ডহরগাঁও এলাকার বাড়ির মালিক আছিয়ার অবহেলায় তিতাসের অবৈধ গ্যাস সংযোগ লিক হয়ে বিস্ফোরণের ঘটনায় রবি মিয়া (৩৫) দ্বগ্ধ হয়েছে বলে অভিযোগ করেন।
দ্বগ্ধ রবি মিয়া, ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলার খিচা এলাকার আব্দুল আজিজের ছেলে।
থানার অভিযোগ সূত্রে রবি মিয়ার স্ত্রী মুক্তা বেগম জানান, জীবিকার তাগিদে রূপগঞ্জ উপজেলার গোলাকান্দাইল ইউনিয়নের ডহরগাঁও এলাকার আছিয়া বেগমের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। বাড়ির মালিক আছিয়া দীর্ঘ সময় ধরে অবৈধ সংযোগ নিয়ে তার আরো ভাড়াটিয়াদের মাঝে সরবরাহ করে আসছে। একইভাবে তাদের ভাড়া ঘরের ভেতর দিয়ে গ্যাস পাইপ নেয়৷ওই পাইপে লিক হলে তা বাড়ির মালিককে জানানো হয়। কিন্তু তারা কোন ব্যবস্থা নেয়নি। এতে বিরক্ত হয়ে তারা ভাড়া বাসা ছেড়ে দিতে চায়৷ কিন্তু বাড়ির মালিক আছিয়া বেগম চলতি মাস শেষ পর্যন্ত থাকতে বাধ্য করে৷
এতে গত ৩০ এপ্রিল বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে মশার কয়েল জ্বালাতে গেলে ওই গ্যাসপাইপের লিক থেকে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে তার স্বামী রবি মিয়া আগুনে পুড়ে গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় গুরুতর আহত অবস্থায় রবি মিয়াকে ঢাকা শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রবি মিয়া মৃত্যু সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত বাড়ির মালিক আছিয়া বেগম বলেন, তারা স্বামী স্ত্রী নিজেরা ঝগড়া লেগে নিজেদের শরীলে নিজেরাই আগুন দিয়েছে।

এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) হুমায়ুন কবির মোল্লা বলেন, এ ধরনের অভিযোগ পেয়ে তা তদন্ত করছি। ঘটনায় জড়িত প্রমাণ পেলে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।
বিজনেস বাংলাদেশ/বিএইচ

এ বিভাগের আরও সংবাদ