ঢাকা দুপুর ১:০৩, শনিবার, ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ডিজিটাল মুদ্রা প্রচলনের কথা ভাবছেন অর্থমন্ত্রী

ডিজিটাল মুদ্রা প্রচলনের কথা বলছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ডিজিটাল মুদ্রা প্রসারের পাশাপাশি এর ঝুঁকির বিষয়টি মাথায় রেখে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অধীনে এর সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের প্রস্তাব করেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) জাতীয় সংসদে ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট প্রস্তাবের সময় ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন।
এ ছাড়াও স্টার্টআপ ও ই-কমার্স ব্যবসাকে উৎসাহ দিতে ডিজিটাল মুদ্রার দিকে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।
বাজেট বক্তৃতায় তিনি বলেন, ‘ক্রিপ্টোকারেন্সির মতো ভার্চুয়াল মুদ্রার ঝুঁকিপূর্ণ ব্যবহার বিশ্বজুড়ে বাড়তে থাকায় এর বিকল্প হিসেবে বিশ্বের অনেক কেন্দ্রীয় ব্যাংক তাদের নিজস্ব মুদ্রার ডিজিটাল সংস্করণ চালু করার লক্ষ্যে কাজ করছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক ডিজিটাল মুদ্রা (সিডিবিসি) চালু করার মূল উদ্দেশ্য হলো ভার্চুয়াল লেনদেনের ক্ষেত্রে অর্থ আদান-প্রদান সহজতর করা এবং স্টার্টআপ ও ই-কমার্স ব্যবসাকে উৎসাহ দেয়া।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আমাদের সরকারের যুগোপযোগী পদক্ষেপের কারণে দেশে ইন্টারনেট ও ই-কমার্সের প্রসার ব্যাপকহারে বেড়েছে। এ প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশ ব্যাংকের মাধ্যমে দেশে সিডিবিসি চালু করার লক্ষ্যে একটি ফিজিবিলিটি স্টাডি পরিচালনা করা হবে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে মূল ধারার আর্থিক ব্যবস্থার সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের জন্য মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ক্রিপ্টো মুদ্রা প্রযুক্তি। এমন পরিস্থিতিতে মূলধারার অর্থনীতির জন্য হুমকি হিসেবে বিবেচিত ক্রিপ্টো মুদ্রার বিকল্প হিসেবে নিজস্ব ডিজিটাল মুদ্রা প্রচলনের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে আগ্রহী এখন বিশ্বের বিভিন্ন দেশ।

মার্কিন থিংক ট্যাংক আটলান্টিক কাউন্সিলের তথ্য বলছে, এ মুহূর্তে সিডিবিসির সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের বিভিন্ন পর্যায়ে আছে ১০৫টি দেশ।
বিজনেস বাংলাদেশ/বিএইচ

এ বিভাগের আরও সংবাদ