ঢাকা দুপুর ১:০২, শনিবার, ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কাল থেকে রাত ৮টার পর বন্ধ থাকবে কাঁচাবাজার, দোকান, বিপণিবিতান

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয় করতে রাত আটটার পর থেকে দোকান, বিপণিবিতান ও কাঁচাবাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আগামীকাল সোমবার থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। আজ রোববার সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানিয়েছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুন্নুজান সুফিয়ান।
রাত আটটার পরে দোকানপাট বন্ধ রাখতে ১৬ জুন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় একটি অনুশাসন দিয়েছিল। সেই অনুশাসন বাস্তবায়ন করতে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অনুশাসনে বলা হয়েছে, বিশ্বব্যাপী জ্বালানির দাম বৃদ্ধির কারণে বিদ্যুৎ ও জ্বালানির সাশ্রয় করা দরকার। এ কারণেই এই সিদ্ধান্ত নিতে হবে।
তবে বেশ কিছু সেবা খাতকে এই সিদ্ধান্তের বাইরে রাখা হয়েছে। যেমন রেলস্টেশন, বিমানবন্দর, পরিবহন সার্ভিস টার্মিনাল, হাসপাতাল, দাফন ও অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্নের প্রয়োজনীয় সামগ্রীর দোকান, ওষুধ ও অপারেশন সরঞ্জাম বিক্রির দোকান, নাপিত ও কেশ প্রসাধনীর দোকান, ক্লাব, হোটেল, রেস্তোরাঁ, খাবারের দোকান, সিনেমা, থিয়েটার, খুচরা পেট্রল বিক্রির দোকান, যেকোনো ময়লানিষ্কাশন বা স্বাস্থ্যব্যবস্থা কার্যক্রম এই নির্দেশনার বাইরে থাকবে।

এ ছাড়া পান, বিড়ি ও সিগারেটের দোকান, খবরের কাগজ, দোকানে বসে খাওয়া যায় এমন নাশতা বিক্রির দোকানও রাত আটটার পর বন্ধের সিদ্ধান্তের বাইরে থাকবে।
তবে বাসার গলির মুদির দোকান খোলা থাকবে কি না, সাংবাদিকেরা এমন প্রশ্ন করলে শ্রম প্রতিমন্ত্রী ও সচিব কেউই এর কোনো পরিষ্কার জবাব দিতে পারেননি।

বৈঠকে উপস্থিত বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন বলেছেন, আগামী ১ থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত কোরবানির ঈদের আগের সময়। তাই এই সময়ে রাত ১০টা পর্যন্ত দোকান খোলা রাখা যায় কি না, তা বিবেচনায় নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তিনি। এর উত্তরে প্রতিমন্ত্রী জানান, আজকের (গতকালের) এই বৈঠকের সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে পাঠানো হবে। সেখানে এই দাবিও অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

বিজনেস বাংলাদেশ/বিএইচ

এ বিভাগের আরও সংবাদ