ঢাকা দুপুর ১২:২০, মঙ্গলবার, ৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জামালপুর আ. লীগের সভাপতি বাকী বিল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক বিজন

প্রায় সাড়ে সাত বছর পর জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২৮ নভেম্বর) দুপুর আড়াইটার জামালপুর জিলা স্কুলের মাঠে সম্মেলন শুরু হয়।

বর্তমান কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমেদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

 

সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনের আলোচনাসভা শেষে দ্বিতীয় অধিবেশনে প্রধান অতিথি ওবায়দুল কাদের সর্বসম্মতিক্রমে বর্তমান কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ কে পুনরায় সভাপতি এবং বাবু বিজন কুমার চন্দ কে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি ঘোষণা করেন। তিন বছর মেয়াদি ওই কমিটিকে দ্রুত সময়ের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার নির্দেশ দেন তিনি।

 

এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কাদের বলেন, বিএনপির সঙ্গে খেলা হবে, রাজপথে খেলা হবে। সেই খেলায় আওয়ামী লীগের নেতারা সামনে থাকবে। মারামারি হবে না, রাজনৈতিক খেলা হবে।

তিনি আরও বলেন, ‘ফখরুল সাহেব বলেন আগামী ১০ ডিসেম্বর নাকি বাঁশিতে ফু দেবেন খালেদা জিয়া। ফখরুলের উদ্দেশে প্রশ্ন রেখে বলি, খালেদা কি হ্যামিলিয়নের বাঁশিওয়ালার মতো বাংলাদেশের জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করে দেশের ক্ষতি করবেন, তা হবে না।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মারুফা আক্তার পপি, রেমন্ড আরেং প্রমুখ।

২০১৫ সালের ২০ মে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হয়। সম্মেলনে মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ্ সভাপতি এবং ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরী সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। এর এক বছর পর গঠিত হয় ৭৫ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি।

এ বিভাগের আরও সংবাদ