ঢাকা রাত ৮:২২, বুধবার, ৩০শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশকে হারালেন AB de Villiers
১০৪ বলে ১৭৬ রানের ইনিংস, যেখানে জ্বলজ্বল করছে ১৫টি চার ও ৭টি ছক্কা। ৬৮ বলে সেঞ্চুরি, পরের ৩৬ বলে আরও ৭৬টি রান। নির্দ্বিধায় এই ঝড়ো ইনিংসকে অতিমানবীয় বলা চলে। বুধবার তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ মূলত হেরে গেছে ভিলিয়ার্সের এমন অতিমানবীয় পারফরমেন্সের কাছেই।
ম্যাচ শেষে বিমর্ষ মনে ভিলিয়ার্সকেই জয়ের কৃতিত্ব দিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। এ সময় তাকে কৃতিত্ব দিলেন ভিলিয়ার্সের সতীর্থ ও প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসই।
সিরিজ জয়ের উচ্ছ্বাস নিয়ে প্লেসিস বলেন, ‘আবারো অনেক ভালো পারফরমেন্স। এবি আজকে বেশি ভালো খেলেছে। আমি ভেবেছিলাম আমরা শুধু ব্যাটিং উইকেটেই ভালো করি, যা আমি টসে বলেছিলাম। কিন্তু এই স্লো উইকেটে ভালো করে ভালো লাগছে।’
সিরিজ জয় নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় এখন স্বাগতিকদের কোনো পিছুটান নেই। শেষ ম্যাচে তাই স্কোয়াডে থেকেও একাদশে জায়গা না পাওয়াদের সুযোগ দিবে দক্ষিণ আফ্রিকা- এমনটাই জানালেন স্বাগতিক অধিনায়ক। এতে নিশ্চিতভাবেই শেষ ম্যাচে দলটির একাদশে আসছে পরিবর্তন।
প্লেসিস বলেন, ‘পরবর্তী ম্যাচে আমরা আমাদের স্কোয়াডের বাকী ক্রিকেটারদের সুযোগ দিবো।‘
অবশ্য অন্যরা ভিলিয়ার্সকে কৃতিত্ব দিলেও বিনয়ী ভিলিয়ার্স নিজে কৃতিত্ব দিচ্ছেন ৮৫ রানের কার্যকরী ইনিংস খেলা হাশিম আমলাকে। দুঃসময় কাটিয়ে মাঠে ফেরা ভিলিয়ার্স বলেন, ‘আমি খুবই উপভোগ করেছি। দেশের হয়ে খেলাটা সম্মানের। আর কয়েকমাস কষ্টের ফলাফল পেতে ভালোই লাগে। আমলা আমাকে অনেক আত্মবিশ্বাস যুগিয়েছে। তাকে ধন্যবাদ।’
সংবাদ সম্মেলনে অনুশীলনের বিকল্প নেই বলে জানিয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। সেটিই আরও স্পষ্ট হল ভিলিয়ার্সের এই কথায়- ‘কিম্বার্লিতে আমি অনেকক্ষণ অনুশীলন করেছি যা আমার অনেক কাজে দিয়েছে। ২০০ করার চিন্তা আমার ছিল না। আমি চেয়েছিলাম শেষদিকে বেশি করে বল খেলতে, যেটা আমার দলের জন্য বেশি কাজে দিবে।’

এ বিভাগের আরও সংবাদ