ঢাকা দুপুর ১:৪৯, সোমবার, ২৮শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মাশরাফির সঙ্গে শুভাশিষের খারাপ আচরণ

চিটাগং ভাইকিংসের ১৬৬ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর পার করতে বিপাকেই পড়ে গেছে মাশরাফির রংপুর। শুরুতেই পর পর দুই উইকেটের পতন আর তাসকিনের দুর্দান্ত বোলিংয়ে পর পর তিনটি উইকেট হারিয়ে খেলায় বেশ চাপে পড়ে যায় রংপুর।
এরই মধ্যে মাশরাফির মারমুখী ব্যাটিং দলকে কিছুটা আশার আলো দেখায়। এমন অবস্থায় দুই দলেই টান টান উত্তেজনা।
উত্তেজনার পারদ এমন পর্যায়েই পৌঁছায় যে ১৭তম ওভারে ক্যাপ্টেন মাশরাফির সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন পেসার শুভাশিষ রায়। ব্যাটিং প্রান্তে থাকা রংপুর রাইডার্স অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার দিকে তেড়ে গেলেন চিটাগং ভাইকিংসের পেসার শুভাশীষ রায়! জাতীয় দলের অধিনায়কের সঙ্গে তারই এক সতীর্থের এমন ঘটনায় হতভম্ব হয়ে গেছে দেশের ক্রিকেটাঙ্গন! ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসের ১৭তম ওভারে ঘটনা। ব্যাটিং প্রান্তে ছিলেন মাশরাফি। আর বোলিং করছিলেন শুভাশীষ। এক বল আগেই একটি বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন। তৃতীয় বলটি রক্ষ্মণাত্মক ভঙ্গিতে খেললেন ম্যাশ। বল চলে গেলো সোজা বোলার শুভাশিসের হাতে। শুভাশিস মাশরাফির দিকে থ্রো করার ভঙ্গি করলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত করেননি।
ঠিক সেই মুহূর্তে মাশরাফি হাত নেড়ে কিছু একটা বলেন শুভাশীষকে। হয়তো বলেছেন নিজের বোলিং মার্কে ফিরে যেতে। কিন্তু হঠাৎ কী হলো শুভাশীষের, তিনি কিছু একটা বলতে বলতে বল হাতে তেড়ে গেলেন ম্যাশের দিকে! সাথে সাথে আম্পায়ার এবং চিটাগংয়ের সতীর্থরা ছুটে এসে অনেক কষ্টে নিবৃত্ত করে সরিয়ে নিয়ে গেলেন শুভাশীষকে। হতভম্ব হয়ে গেলেন মাশরাফি! সাথে হতভম্ব হলেন দর্শকরা!
তবে মারাফির বডি ল্যাঙ্গুয়েজ বলছিল শুভাশিষের আচরণে বিস্মিত হয়েছেন তিনি। অবশ্য ওভার শেষে মাশরাফির সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায় শুভাশিষকে। তবে মাশরাফি ছিলেন অনেকটাই নির্লিপ্ত। শুভাশিষের এই আচরণে হতবাক ক্রিকেট প্রেমিরা।

এ বিভাগের আরও সংবাদ